অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার নিয়ম 2023 । এখন ঘরে বসেই অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করা যায়।

ইউনিয়ন পরিষদ বা পৌর সভায় আপনি জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম জমা দিয়ে করতে পারবেন কিন্তু তাতে ভুলে ভরা থাকবে। নিজের আবেদন নিজেই করলে ভুল ত্রুটি এড়ানো যাবে।

নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন করুন অনলাইনে – বানান ভুল এড়াতে নিজের আবেদন নিজেই করুন– অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার নিয়ম 2023

এখন ঘরে বসেই অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করা যায়। আসুন জেনে নেই কিভাবে অনলাইন থেকে জন্ম নিবন্ধন করবো। অনলাইন থেকে জন্ম নিবন্ধন করতে প্রথমেই আপনাকে Chrome ব্রাউজারে যেতে হবে। এখানে আপনি Search Bar এ গিয়ে লিখবেন হচ্ছে http://bdris.gov.bd এবার Enter বা Search এ ক্লিক করুন। আপনি জন্ম নিবন্ধনের সরকারি Website টি পেয়ে যাবেন।

http://bdris.gov.bd এই Website থেকেই আপনি জন্ম নিবন্ধনের সকল কাজ করতে পারবেন। এবার আপনি নিচের লেখাটি দেখতে পাবেন #জন্ম নিবন্ধন আপনার কোন ঠিকানা থেকে সংগ্রহ করতে চান। 1. জন্মস্থান 2. স্থায়ী ঠিকানা 3. বর্তমান ঠিকানা এখান থেকে আপনি যেকোন একটি Select করতে পারবেন। আসুন স্থায়ী ঠিকানা select করি। এবার পরবর্তী বাটনে ক্লিক করি। এখন আপনার সামনে যে Page টি আছে তা ভালোভাবে দেখে নিন। #নতুন জন্ম নিবন্ধনের আবেদন আপনি এখানে পাবেন 1. নামের প্রথম অংশ বাংলায় 2. নামের শেষ অংশ বাংলায় 3. নামের প্রথম অংশ ইংরেজিতে 4. নামের শেষ অংশ ইংরেজিতে 5. জন্ম তারিখ এখানে বলে রাখি জন্ম তারিখ দেয়ার পর একটি নোটিশ দেখাবে।

নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন –http://bdris.gov.bd/br/application । জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন আবেদন- http://bdris.gov.bd/br/correction । জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনুসন্ধান- http://bdris.gov.bd/br/search

জন্ম নিবন্ধন নতুন করে বা সংশোধন করে আপনাকে কিছু ডকুমেন্ট অনুসারে ফরম পূরণ করতে হবে এবং পরবর্তীতে প্রিন্ট কপিসহ ডকুমেন্ট ইউপি বা পৌরসভায় জমা দিতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন আবেদনের বর্তমান অবস্থা- http://bdris.gov.bd/br/application/status । জন্ম নিবন্ধন আবেদন পত্র প্রিন্ট- http://bdris.gov.bd/application/print । জন্ম নিবন্ধন সনদ পুনঃ মুদ্রন- http://bdris.gov.bd/br/reprint

নতুন জন্ম নিবন্ধন আবেদন করার নিয়ম ২০২৩ । জন্ম নিবন্ধন সম্পন্ন করার জন‍্য নিচের ডকুমেন্টসগুলো আপনার লাগবে

  • আপনার যদি প্রাথমিক/জুনিয়র সার্টিফিকেট/এস.এস.সি সনদ এগুলো যদি না থাকে তবে ডাক্তার কর্তৃক একটি প্রত‍্যায়নপত্র লাগবে।
  • পিতা – মাতার জন্মসনদ
  • স্থায়ী ঠিকানার জন‍্য কর রশিদ বা জমির দলিলপত্র এইসব ডকুমেন্টস যদি আপনার থাকে তবে আপনি জন্ম তারিখ দিন।
  • লিঙ্গ – পুরুষ, মহিলা, তৃতীয় লিঙ্গ যে কোন একটি সিলেক্ট করুন।
  • জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর (না দিলেও সমস‍্যা নেই)
  • জন্মস্থানের ঠিকানা # দেশ # বিভাগ # জেলা # উপজেলা # ওয়ার্ড # ডাকঘর বাংলায় # ডাকঘর ইংরেজিতে # গ্রাম/পাড়া বাংলায় # গ্রাম/পাড়া ইংরেজিতে # বাসা/সড়ক বাংলায় # বাসা/ সড়ক ইংরেজিতে এখানে সবগুলো এন্ট্রি করুন।

এবার পরবর্তীতে ক্লিক করুন। এখন আপনাকে যা করতে হবে তা স্কিনে দেখতে পারছেন পিতার জন্ম নিবন্ধন নম্বর পিতার নাম বাংলায় পিতার নাম ইংরেজিতে পিতার জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর (না দিলেও চলবে) পিতার জাতীয়তা মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বর মাতার নাম বাংলায় মাতার নাম ইংরেজিতে মাতার জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর (না দিলেও চলবে) মাতার জাতীয়তা উপরের সবগুলো এন্ট্রি হয়ে গেলে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন। এই পেইজে আপনার বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা একই হলে শুধু বক্সে টিক দিলেই হবে। এবার পরবর্তীতে ক্লিক করলে পরের পেইজে আপনি দেখবেন নিজ ও অন‍্যান‍্য লেখা রয়েছে। আপনার বয়স যদি 18 বা তদুর্ধ্ব হয় তবে নিজ সিলেক্ট করুন। আর যদি বয়স 18 এর নিচে হয় তবে অন‍্যান‍্য সিলেক্ট করুন। আমরা নিজ সিলেক্ট করে দিলাম।

এবার নিচে সংযোজন এ ক্লিক করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র Attach করতে হবে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আগে থেকেই ফাইল করে রাখতে হবে। কাগজপত্রগুলো দেয়া হয়ে গেলে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন। এবার আপনার সামনে একটি ফাইল দেখতে পাবেন। এই ফাইলে এতক্ষণ আমরা যে কাজগুলো করলাম সেসকল তথ‍্যগুলো দেখাবে। আপনি ভালো করে ফাইলটি পড়ে দেখবেন সব তথ্য ঠিক আছে কিনা। সব ঠিক থাকলে সাবমিট বাটনে ক্লিক করুন।

এখানে লেখা থাকবে আপনার জন্ম নিবন্ধন আবেদনটি সংশ্লিষ্ট কার্যালয়ে দাখিল হয়েছে। এখানে আবেদন পত্রের একটি নাম্বার দেয়া থাকবে। এই নাম্বারটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই লিখে রাখবেন। একদম নিচে আবেদন প্রিন্ট করুন লেখাতে ক্লিক করে আবেদন পত্রটি প্রিন্ট করবেন। এই আবেদন পত্র ও পিতা –মাতার Nid এবং জন্মসনদের ফটোকপি নিয়ে আপনার ইউনিয়ন বা পৌরসভায় গিয়ে জমা দিন। তাদের কাজ শেষ হলে sms এর মাধ্যমে আপনাকে ডাকবে। নির্দিষ্ট তারিখে গেলেই আপনি পেয়ে যাবেন আপনার অনলাইন জন্মসনদ।

admin

admin

আলামিন মিয়া, একজন ব্লগার, ডিজিটাল মার্কেটার, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজার। ব্লগিংকরছি প্রায় ৭ বছর যাবৎ। বিভিন্ন অনলাইন সেবা হাতের কাছে পেতে নির্দেশনা ও পদ্ধতি গুলো ব্যাখ্যা করা হয় যা আপনি খুব সহজেই এই ওয়েবসাইট হতে পেতে পারেন। যদি অতিরিক্ত কোন তথ্য প্রয়োজন হয় বা পরামর্শ থাকে তবে মেইল করুন admin@tricksboss.com

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • Trending
  • Comments
  • Latest