বিকাশ সাপ্তাহিক সেভিংস একাউন্ট ২০২৪ । ডিপিএস মেয়াদ শেষে ফ্রিতে ক্যাশ আউট করুন

বিকাশে আপনি চাইলে সাপ্তাহিক ভাবে মাত্র ২৫০ টাকা ডিপিএস করতে পারেন ৯% সুদে মাত্র ৬ মাস বা এক মাস পর তা ক্যাশ করতে পারেন কোন চার্জ ছাড়াই–বিকাশ সাপ্তাহিক সেভিংস একাউন্ট ২০২৪

মেয়াদ শেষে খরচ ছাড়া ক্যাশ আউট করা যাবে? হ্যাঁ। – ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে সঞ্চয় করতে পারেন যা ব্যাংকে সম্ভব নয়। প্রতি সপ্তাহে ২৫০ থেকে ৫,০০০ পর্যন্ত সেভিংস করুন। মেয়াদ শেষে ক্যাশ আউট  চার্জ ছাড়াই করা যাবে। বিকাশে আপনি সাপ্তাহিক ডিপিএস করার মাধ্যমে স্বাবলম্বী হতে পারেন এবং জরুরী প্রয়োজনে ডিপিএস ভেঙ্গে প্রয়োজন মেটাতে পারেন। ডিপিএস ভাঙ্গানোর রিকুয়েস্ট পাঠানের ১-২ দিনের মধ্যে টাকা আপনার বিকাশ একাউন্টে জমা হয়ে যাবে।

কি কি কাগজপত্র লাগে বিকাশ ডিপিএস খুলতে? আরো সহজে, নিশ্চিন্তে টাকা জমাতে বিকাশ অ্যাপে এসে গেলো সাপ্তাহিক সেভিংস। এখন বিকাশ অ্যাপ দিয়ে প্রতি সপ্তাহে সেভিংস করুন ব্র্যাক ব্যাংক ও ঢাকা ব্যাংকে, সহজে ও নিরাপদে।  কাগজপত্রের ঝামেলা ছাড়াই মাত্র ২৫০ টাকা থেকে ৫,০০০ টাকা পর্যন্ত * ৬ মাস/ ১২ মাসের জন্য বিকাশ ডিপিএস খুলুন। অটো টাকা জমা হবে প্রতি সপ্তাহে। মেয়াদ শেষে মুনাফাসহ মোট টাকা ক্যাশ আউট করুন কোনো চার্জ ছাড়াই।

বিকাশ ডিপিএস কতজন করছেন?– ব্যাংকে না গিয়ে কিংবা ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ছাড়াই ঘরে বসে মুহূর্তেই বিকাশ অ্যাপ থেকে ব্যাংকের মাসিক সঞ্চয়সেবা নেওয়ার সুযোগ থাকায় নারীদের মধ্যে বাড়ছে সঞ্চয়প্রবণতা। কয়েক সেকেন্ডেই বিকাশ অ্যাপ থেকে পছন্দমতো ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঞ্চয়সেবা খোলা, মাসিক কিস্তি জমা দেওয়াসহ সবকিছু হাতের মুঠোয় থাকায় সব শ্রেণির গ্রাহকের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এই সেবা। বিশেষ করে নারীদের জন্য তৈরি করেছে বাড়তি সুবিধা। ফলে ডিজিটাল এই সুবিধা নিয়ে এখন পর্যন্ত তিন লাখের বেশি নারী বিকাশের মাধ্যমে চারটি ব্যাংক ও একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে বিভিন্ন মেয়াদের সঞ্চয়সেবা গ্রহণ করেছেন। সূত্র: প্রথম আলো

সাপ্তাহিক বিকাশ ডিপিএস / বিকাশে টাকা ফেলে না রেখে বিনিয়োগ করুন

প্রতি সপ্তাহে ২৫০ টাকা কেটে নিবে অথবা চাইলে ১০০০, ২০০০ বা ৫০০০ টাকার ডিপিএস একাউন্টও খুলতে পারেন।

বিকাশ ডিপিএস

Caption: bkash savings scheme

বিকাশের নতুন ডিপিএস স্কিম ২০২৪ । জেনে নিন বিকাশ অ্যাপ দিয়ে কীভাবে টাকা জমানো শুরু করবেন?

  1. বিকাশ অ্যাপের হোমস্ক্রিন থেকে ‘সেভিংস’ বাটনে ট্যাপ করে নিয়ম ও শর্তাবলিতে সম্মতি দিয়ে এগিয়ে যান।
  2. এখন ‘নতুন সেভিংস স্কিম খুলুন’-এ ট্যাপ করুন।
  3. সেভিংস-এর সময়কাল (২/৩/৪ বছর) ও জমার ধরন (মাসিক) নির্বাচন করুন।
  4. প্রতিমাসে যে পরিমাণ টাকা জমাবেন (২৫০/১,০০০/২,০০০/৫,০০০) তা সিলেক্ট করুন।
  5. মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক এর স্কিম নির্বাচন করে মোট জমার তথ্য দেখে এগিয়ে যান।
  6. আপনার নমিনি সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সেভিংস-এর উদ্দেশ্য নির্বাচন করুন।
  7. সেভিংস সামারি দেখে নিশ্চিত হয়ে নিন।
  8. নিয়ম ও শর্তাবলী ভালোভাবে পড়ে, বুঝে আপনার সম্মতি দিন।
  9. আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন দিন।
  10. সবশেষে – স্ক্রিনের নিচের অংশ ট্যাপ করে ধরে রাখুন।
  11. সেভিংস-এর রিকোয়েস্টটি সম্পন্ন হলে, বিকাশ ও মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক থেকে কনফার্মেশন ম্যাসেজ পাবেন।
  12. ব্যাস! আপনি সফলভাবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে খুলে ফেললেন আপনার সেভিংস স্কিম।

সুদ কত % দেয়?

বিকাশে আপনারও হয়তো একটি একাউন্ট আছে যেখাবে আপনি মাসে মাত্র ২৫০ টাকা জমিয়ে বছরে ৫০০০ টাকা জমা করতে পারেন এবং মেয়াদ শেষে ৯.৫% হারে মুনাফা গ্রহণ করতে পারেন। তবে আপনি বিকাশের ব্র্যাক ব্যাংকে ডিপিএস করলে ৮% ইন্টারেস্ট পাবেন। স্বল্প সময়ের জন্য ডিপিএস করা যায় বলে এটি জরুরি প্রয়োজনে ব্যবহার করা যায়। যে কোন সময় এটি ভেঙ্গে ফেলা যায় তবে বিকাশ ডিপিএস এর মেয়াদ ৬ মাস পূর্ণ হতে হবে।

admin

আলামিন মিয়া, একজন ব্লগার, ডিজিটাল মার্কেটার, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজার। ব্লগিংকরছি প্রায় ৭ বছর যাবৎ। বিভিন্ন অনলাইন সেবা হাতের কাছে পেতে নির্দেশনা ও পদ্ধতি গুলো ব্যাখ্যা করা হয় যা আপনি খুব সহজেই এই ওয়েবসাইট হতে পেতে পারেন। যদি অতিরিক্ত কোন তথ্য প্রয়োজন হয় বা পরামর্শ থাকে তবে মেইল করুন admin@tricksboss.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *