নিকাহ রেজিস্ট্রার গেজেট ২০২৪ । কাজী হতে চাইলে কি করতে হবে?

মুসলিম বিবাহ রেজিস্টার হতে চান তবে আপনি বিস্তারিত তথ্য এখান থেকে জেনে নিতে পারেন – মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা ২০০৯

বিবাহ রেজিস্টার হওয়ার যোগ্যতা কি? কোন ব্যক্তি নিকাহ রেজিস্ট্রারের লাইসেন্স পাইবার যোগ্য হইবেন না, যদি না⎯ (ক) তিনি সরকার কর্তৃক স্বীকৃত কোন বিশ্ববিদ্যালয় বা মাদ্রাসা বোর্ড কর্তৃক নিবন্ধিত কোন মাদ্রাসা হইতে আলীম সার্টিফিকেটধারী না হন; (খ) তাহার বয়স কমপক্ষে একুশ এবং অনূর্ধ্ব চল্লিশ বৎসর না হয়; (গ) তিনি সংশ্লিষ্ট এলাকার বাসিন্দা না হন।

আবেদন ফর্মের সাথে কি কি কাগজ সংযুক্ত করতে হবে? মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা ২০০৯ এর বিধি ৯। নিকাহ রেজিস্ট্রারের লাইসেন্সের জন্য দরখাস্ত।⎯নিকাহ রেজিস্ট্রার লাইসেন্সের জন্য প্রতিটি দরখাস্ত, নিম্নবর্ণিত কাগজপত্রসহ, ফরম ‘ক’ তে সংশ্লিষ্ট উপদেষ্টা কমিটির সদস্য সচিবের নিকট দাখিল করিতে হইবে, যথাঃ⎯ (ক) তিন কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি; (খ) শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রের সত্যায়িত কপি; এবং (গ) জাতীয় পরিচয়পত্র বা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বা পৌরসভা বা সিটি কর্পোরেশন এর কাউন্সিলর বা কমিশনার কর্তৃক প্রদত্ত নাগরিকত্বের সনদ।

নিকাহ রেজিস্ট্রেশন কি ৬৫ হলে বাতিল হয়ে যায়? হ্যাঁ। মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা ২০০৯ এর  বিধি ১২। বয়স পূর্তিতে লাইসেন্সের অবসান।⎯এই বিধিমালার অধীন কোন কোন লাইসেন্স পূর্বেই বাতিলকৃত না হইলে, নিকাহ রেজিস্ট্রারের লাইসেন্সপ্রাপ্ত ব্যক্তির বয়স ৬৫ (পঁয়ষট্টি) বৎসর পূর্ণ হওয়ার তারিখে স্বয়ংক্রিয়ভাবে উক্ত লাইসেন্সের কার্যকরতার অবসান ঘটিবে।

মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা ২০১২ । নিকাহ রেজিস্ট্রার গেজেট ২০২৪

বিধি ১০। লাইসেন্স ফরম।⎯নিকাহ রেজিস্ট্রারের লাইসেন্স ফরম ‘খ’ তে প্রদান করিতে হইবে।

মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা ২০০৯ । নিকাহ রেজিস্টার হওয়অর যোগ্যতা ও আবেদন করার নিয়ম

মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা ২০০৯

মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা ২০০৯ এর বিধি ৬। নিকাহ রেজিস্ট্রার লাইসেন্স প্রদান পদ্ধতি, ইত্যাদি

  1. (১) কোন সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা বা ইউনিয়ন পরিষদ এলাকার কোন নিকাহ রেজিস্ট্রারের মৃত্যুজনিত কারণে লাইসেন্সের কার্যকরতার অবসান ঘটিলে সংশ্লিষ্ট এলাকার চেয়ারম্যান, কমিশনার বা কাউন্সিলর লাইসেন্সের কার্যকরতার অবসান হইবার, এবং অন্য কোন কারণে লাইসেন্সের কার্যকরতার অবসান ঘটিলে বা নিকাহ রেজিস্ট্রারের নতুন কোন অধিক্ষেত্র সৃষ্টি হইলে সরকার, উক্ত লাইসেন্সের কার্যকরতার অবসান বা নিকাহ রেজিস্ট্রারের নূতন কোন অধিক্ষেত্র সৃষ্টি হইবার, তারিখ হইতে পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে, সংশ্লিষ্ট জেলা রেজিস্ট্রার বা সাব-রেজিস্ট্রারকে অবহিত করিবে।
  2. (২) উপ-বিধি (১) এর অধীন কোন নিকাহ রেজিস্ট্রারের লাইসেন্সের কার্যকরতার অবসান বা নিকাহ রেজিস্টারের নূতন কোন অধিক্ষেত্র সৃষ্টি হইবার তথ্য অবহিত হইবার তারিখ হইতে পরবর্তী দুই সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্ট জেলা রেজিস্ট্রার বা সাব-রেজিস্ট্রার, নিকাহ রেজিস্ট্রারের লাইসেন্স প্রদানের উদ্দেশ্যে, পনের দিনের সময় প্রদান করিয়া, আগ্রহী প্রার্থীর দরখাস্ত আহবান করিবেন।
  3. (৩) উপ-বিধি (২) এর অধীন দরখাস্ত আহবানের নোটিশ উপদেষ্টাসহ উপদেষ্টা কমিটির সকল সদস্যের দপ্তরের নোটিশ বোর্ডে অথবা দৃষ্টিগ্রাহ্য অন্য কোন স্থানে বিজ্ঞপ্তি সাঁটিয়া উহা জারী করিতে হইবে এবং কোন উপদেষ্টা বা সদস্যের নিজস্ব দপ্তর না থাকিলে, উক্ত সদস্যকে বিজ্ঞপ্তির একটি কপি প্রদান করিতে হইবে।
  4. (৪) উপ-বিধি (২) এর অধীন দরখাস্ত আহবানের প্রেক্ষিতে, সংশ্লিষ্ট জেলা রেজিস্ট্রার বা সাব- রেজিস্ট্রার কর্তৃক গৃহীত সকল দরখাস্ত উপদেষ্টা কমিটির বিবেচনার জন্য উপস্থাপন করিতে হইবে এবং উক্তরূপে উপস্থাপনকৃত দরখাস্ত বিবেচনাক্রমে উপদেষ্টা কমিটি বিধি ৯ এর অধীন দরখাস্ত প্রাপ্তির পরবর্তী পনের দিনের মধ্যে নিকাহ রেজিস্ট্রারের লাইসেন্স প্রদানের উদ্দেশ্যে, প্রার্থী বাছাই সম্পন্ন করিবে।
  5. (৫) উপদেষ্টা কমিটি প্রতিটি লাইসেন্সের বিপরীতে তিনজন প্রার্থী বাছাই করিবে এবং সংশ্লিষ্ট জেলা রেজিস্ট্রার বা সাব-রেজিস্ট্রার উপ-বিধি (৪) এর অধীন বাছাই সম্পন্নের পরবর্তী সাত দিনের মধ্যে সকল দরখাস্ত এবং প্রয়োজনীয় দলিলাদিসহ তিনজন প্রার্থীর প্যানেল সরকারের নিকট প্রেরণ করিবে।
  6. (৬) উপ-বিধি (৫) এর অধীন প্রেরিত প্যানেল প্রাপ্তির অনধিক ত্রিশ দিনের মধ্যে সরকার প্যানেলভুক্ত যে কোন একজন প্রার্থীর অনুক‚লে লাইসেন্স মঞ্জুরের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করিবে এবং উক্ত সিদ্ধান্ত সংশ্লিষ্ট প্রার্থীকে অবিলম্বে অবহিত করিতে হইবে।
  7. (৭) উপ-বিধি (৬) এর অধীন সরকারী সিদ্ধান্ত অবহিত হইবার পর সংশ্লিষ্ট প্রার্থী উপ-বিধি (৮) এ নির্ধারিত ফি কোন সরকারী ট্রেজারী বা সাব-ট্রেজারীতে ‘‘কোড নং- ১-২১৬১-০০০০-১৮৫৪, লাইসেন্স ফি’’- খাতে জমা প্রদান করিয়া জমাদানের চালানের মূল কপি সরকারের নিকট দাখিল করিবে।

নিকাহ রেজিস্টার লাইসেন্স বাতিল হয় কখন?

মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা ২০০৯ এর বিধি ১১ তে (১) এই বিধিমালার অধীন প্রদানকৃত লাইসেন্স অসদাচরণের জন্য অথবা আইনের ধারা ১১ তে বর্ণিত যে কোন কারণে বাতিল বা স্থগিত করা যাইবে। ব্যাখ্যা।⎯‘‘অসদাচরণ” বলিতে আইন বা বিধিমালার যে কোন বিধান লংঘন, একাধিক এলাকার নিকাহ্ রেজিস্ট্রার হওয়া বা যে কোন ধরনের তথ্যের মিথ্যা বর্ণনা নৈতিক স্খলনকে বুঝাইবে। (২) এই বিধিমালার অধীন প্রদানকৃত লাইসেন্স বাতিল বা স্থগিত করিবার ক্ষেত্রে, সরকার কর্তৃক সংশ্লিষ্ট নিকাহ রেজিস্ট্রারকে, কেন তাহার বিরুদ্ধে প্রস্তাবিত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হইবে না, তৎমর্মে লিখিতভাবে কারণ দর্শাইবার জন্য পনের দিনের সময় প্রদানপূর্বক নোটিশ প্রদান করিতে হইবে এবং উক্ত নোটিশে সংশ্লিষ্ট নিকাহ রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগসমূহের উল্লেখ থাকিতে হইবে। (৩) কোন নোটিশ সংশ্লিষ্ট নিকাহ রেজিস্ট্রারের সর্বশেষ জ্ঞাত ঠিকানায় রেজিস্ট্রী ডাকযোগে প্রেরিত হইলে, তাহাকে নোটিশ পাঠানো হইয়াছে বলিয়া গণ্য হইবে। (৪) উপ-বিধি (২) এর অধীন জারীকৃত নোটিশে উল্লিখিত সময়-সীমার মধ্যে কোনরূপ কারণ দর্শানো না হইলে অথবা কোন কারণ দর্শানোর প্রেক্ষিতে কোন আপত্তি বা জবাব দাখিল করা হইলে, সরকার উহা পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর, যেরূপ উপযুক্ত মনে করিবে সেরূপ আদেশ প্রদান করিতে পারিবে এবং উক্ত আদেশ চ‚ড়ান্ত বলিয়া গণ্য হইবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *