সহজ উপায়ে সয়াবিন রান্নার টিপস ২০২৩/সয়াবিন কষা বা ভুনা রেসিপি ২০২৩

সহজ উপায়ে সয়াবিন রান্নার টিপস ২০২৩/সয়াবিন কষা বা ভুনা রেসিপি ২০২৩।

প্রথমে গোটা সয়াবিনকে রান্নার আগে ভালো মতো ভিজিয়ে রাখতে হবে তারপর ভালোমতো চিপে পানি ফেলে দিয়ে আরো দুই এক বার এমন করে ধুয়ে নিয়ে ভালোমতো পানি চিপে ফেলে দিতে হবে। নয়তো সয়াবিনে এর একটা গন্ধ থাকে।  তারপর কড়াইতে অল্প তেল দিয়ে অল্প আচে ভালোমতো ভেজে নিতে হবে যেন কাচা ভাব না থাকে।  এই রেসিপিটি তৈরি করার জন্য গ্যাসে একটা প্যান বসিয়ে বেশ খানিকটা জল গরম করে নিন।

প্রস্তুত প্রনালি:

১.এর মধ্যে এক চা চামচ লবণ আর দেড়শ গ্রাম সয়াবিন দিয়ে দিন।

২.হাইফ্লেমে সয়াবিন কিছুক্ষণ সেদ্ধ করে নিতে হবে। এভাবে সেদ্ধ করে রান্না করলে সয়াবিনের মধ্যে যে কাঁচা গন্ধ থাকে সেটা সম্পূর্ণ চলে যাবে। সেদ্ধ হয়ে গেলে এটাকে গরম জল থেকে তুলে একবার ঠান্ডা জলে ভালো করে ধুয়ে নিন।

৩.তারপর গ্যাসে একটা কড়াই বসিয়ে দুই টেবিল চামচ রান্নার তেল দিয়ে গরম করে ফেলুন। এর মধ্যে একটু লবণ আর হলুদ দিয়ে ডুমো করে কাটা আলু গুলোকে ভেজে ফেলুন।। এবার এর মধ্যে

আগে থেকে সেদ্ধ করে রাখা সয়াবিন যোগ করুন। অবশ্যই সয়াবিনের জলগুলো চেপে নেবেন। নাহলে কিন্তু এটা ভালো করে ভাজা হবে না। ভাজা হয়ে গেলে এটাকে একটা অন্যপাত্রে উঠিয়ে রাখুন।

৪.কড়াইতে আরো বেশ খানিকটা তেল দিয়ে দিন। তেল গরম হয়ে গেলে এর মধ্যে একটা তেজপাতা, একটা শুকনো লঙ্কা, তিনটে ছোট এলাচ, দুটো লবঙ্গ, হাফ চা চামচ গোটা জিরে এবং একটা দারচিনি দেবেন। গ্যাসের আঁচ কমিয়ে এর মধ্যে এক চা চামচ আদা বাটা, দুই চা চামচ দই, চার চা চামচ কাজু বাটা  এক চামচ  কাঁচা লঙ্কা বাটা, হাফ চা চামচ কাশ্মীরি লাল লঙ্কার গুঁড়ো, এক চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, এক চা চামচ ধনে গুঁড়া এবং একটা চামচ জিরে গুঁড়ো। খুব সামান্য চিনি এবং কয়েকটা কাঁচা লঙ্কা যোগ করে দিন। একটু জল দিয়ে সমস্ত মসলাকে খুব ভালোভাবে কষিয়ে নেবেন। পাঁচ মিনিট পর্যন্ত মিডিয়াম টু হাই ফ্লেমে মসলা কষানো হয়ে গেলে দেখবেন তেল ছাড়তে শুরু করে দিয়েছে।

৫.রান্নার এই পর্যায়ে আগে থেকে ভেজে রাখা সয়াবিন আর আলু গুলোকে এর মধ্যে দিয়ে দিন।_ 

৬.মসলার সাথে সয়াবিন আর আলু গুলোকে আবার কিছুক্ষণ কষিয়ে নিতে হবে। ভালোভাবে সবকিছু মেশানোর পরে যদি একটু শুকনো মনে হয় তাহলে সামান্য জল যোগ করবেন। ভালো করে কষানো না হলে কিন্তু খেতে ভালো লাগবে না।

৭.খুব ভালো করে কষানো হয়ে গেলে এর মধ্যে পরিমাপ বুঝে জল দিয়ে দেবেন। আপনারা যেমন গ্রেভি রাখতে চান সেই অনুযায়ী জল দেবেন। ব্যাস এবার বেশ কিছুক্ষণ রান্না কে ফুটিয়ে নিলে কিন্তু তৈরি হয়ে যাবে দুর্দান্ত স্বাদের সয়াবিন কষা। গরম ভাত অথবা রুটির সাথে খুব সহজেই এটাকে পরিবেশন করা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *