IMEI number check code 2024 । মোবাইল IMEI চেক করার নিয়ম দেখুন

দেশের রাজস্ব বাড়াতে অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট নেটওয়ার্ক হতে বিচ্ছিন্ন করার কথা জানিয়েছে বিটিআরসি– Mobile Handset Checking by Dialing Code

চোরাই মোবাইল আমদানি কি এতে বন্ধ হবে? হ্যাঁ। মানুষ না কিনলে চলবে কি করে – বিটিআরসি কর্তৃক জাতীয় পরিচিতি ও নিবন্ধিত সিম কার্ডের সাথে ট্যাগিং করে প্রতিটি মোবাইল ফোন নিবন্ধনের মাধ্যমে বিভিন্ন সরকারী সেবা গ্রহণ/ প্রদান নিশ্চিত করা, অবৈধভাবে উৎপাদিত/আমদানিকৃত মোবাইল ফোনের ব্যবহার বন্ধ করার মাধ্যমে সরকারের রাজস্ব আহরণ নিশ্চিত করা এবং ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের চুরি ও অবৈধ ব্যবহার রোধ করার উদ্দেশ্যে এনইআইআর এর কার্যক্রম পূর্ণাঙ্গ রূপে চালু করার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। অতিশীঘ্রই অবৈধ মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক হতে বিচ্ছিন্ন করা হবে।

আপনার মোবাইলটি কি সচল থাকবে? এখনই চেক করে নিন। মোবাইল হ্যান্ডসেট ক্রয়ের পূর্বে মেসেজ অপশন থেকে KYD<space> ১৫ ডিজিটের IMEI নম্বর লিখে (উদাহরণ সরূপঃ KYD 123456789012345) ১৬০০২ নম্বরে প্রেরণের মাধ্যমে হ্যান্ডসেটের বৈধতা যাচাই করা যাবে।

আপনার ফোনটাতে সিম আর চলবে না? আপনার মোবাইল ফোনটি বৈধ কিনা তা যাচাই করতে পারবেন সহজেই। বিটিআরসি জানিয়েছে, ব্যবহৃত মোবাইলে যেকোনো সিম চালু করে ফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে KYD<স্পেস>মোবাইল ফোন সেটের ১৫ ডিজিটের IMEI নম্বরটি লিখতে হবে। এরপর সেটা ১৬০০২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফিরতি মেসেজে মোবাইল হ্যান্ডসেটের বৈধতা সম্পর্কে জানিয়ে দেয়া হবে।

যেভাবে আপনি দেখবেন যে আপনার ফোন বৈধ কিনা / অবৈধ মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক থেকে বিচ্ছিন্ন করা হবে

নতুন ফোন ক্রয়ের আগে অবশ্যই চেক করবেন সরকারি ডাটাবেইজে এটি নিবন্ধিত কিনা।

Mobile Handset Checking by Dialing Code । অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট নেটওয়ার্ক হতে বিচ্ছিন্ন করা হবে?

Caption: info source

ফোনের IMEI বের করার নিয়ম ২০২৪ । যেভাবে ফোন চেক করার আইডেনন্টি ফিকেশন নম্বর বের করবেন

  1. একাধিক উপায়ে নিজের ফোনের IMEI নম্বর জানতে পারবেন।
  2. USSD কোড ব্যবহার করে।
  3. ফোন থেকে *#06# ডায়াল করুন।
  4. এবার আপনার ফোনের স্ক্রিনে IMEI নম্বর ভেসে উঠবে।
  5. ব্যাস কাজ শেষ। এটি দিয়ে ম্যাসেজ দিয়ে  জেনে নিন ফোন চলবে নাকি বন্ধ হবে।

আমদানি যারা করে তাদের কি হবে?

একইসাথে, কোন আমদানিকারক/স্থানীয়ভাবে মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেট সংযোজন ও উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান কর্তৃক অবৈধ হ্যান্ডসেট উৎপাদন /আমদানি না করার জন্য এবং কোন বিক্রেতা কর্তৃক অবৈধ হ্যান্ডসেট বিক্রয় না করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো যাচ্ছে। কোন বিক্রেতা অবৈধ কোন হ্যান্ডসেট বিক্রয় করলে ক্রেতার দাবি অনুযায়ী হ্যান্ডসেটের মূল্য ফেরত প্রদান করতে হবে। অবৈধ হ্যান্ডসেট উৎপাদন/আমদানি/ক্রয়/বিক্রয় করলে টেলিযোগাযোগ আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মনে রাখবেন মোবাইলের আইএমইআই নম্বর কখনও পরিবর্তন করা যায় না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *